৪৫ শিক্ষার্থীকে ট্যালেন্টপুল ও সাধারণ গ্রেডে অ্যাসেবের বৃত্তি প্রদান

রবিবার ২২ জানুয়ারী ২০২৩ ০০:০৬


নিজস্ব প্রতিনিধি 

বৃত্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ৪৫ জন শিক্ষার্থীকে ট্যালেন্টপুল ও সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি সনদ দিয়েছে বাংলাদেশ কোচিং পরিচালকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব শ্যাডো এডুকেশন বাংলাদেশ (অ্যাসেব) মোহাম্মদপুর ইউনিট। শনিবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর টোকিও স্কয়ারে বৃত্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে এই পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইতালি দূতাবাসের প্রশাসন ও হিসাব বিজ্ঞানের প্রধান জিউসেপ সেমেনজা, কেন্দ্রিয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক তামিমা এম মিতুয়া ও কেন্দ্রিয় কমিটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার মাহবুবুর রহমান।
ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ‘আজ যারা বৃত্তি পেয়েছো তারা ভবিষ্যতে আরও ভালো কিছু করবে। আর যারা বৃত্তি পায়নি তাদেরও হতাশ হবার কিছু নেই। তোমরাও চেষ্টা করলে ভালো কিছু করতে পারবে।’
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ করে ড. শাহজাহান বলেন, ‘সবাইকে জ্ঞান চর্চা করতে হবে। ডিজিটাল প্রযুক্তির জন্য গোটা পৃথিবী তোমাদের হাতের মুঠোয়। তোমরা ইচ্ছা করলেই মোবাইলের মাধ্যমে ইন্টারনেটের মাধ্যেমে সবকিছু জানতে পারো। আবার মোবাইলে যেমন ভালো দিক আছে তেমন খারাপ দিকও কিন্তু আছে। কাজেই তোমরা সঠিকপথে ভালো কাজে ব্যবহার করবে।’ এ সময় সকল শিক্ষার্থীর জন্য শুভকামনা জানান তিনি।
এর আগে গত ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় উপলক্ষে বৃত্তি পরীক্ষার আয়োজন করে অ্যাসেব মোহাম্মদপুর ইউনিটের বৃত্তির প্রবর্তক সভাপতি মো. কামরুল হাসান। 
এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে মোহাম্মদপুরের বিভিন্ন স্কুলের প্রায় ৪২১ জন শিক্ষার্থী। পরীক্ষার মাধ্যউমে নির্বাচিত ৪৫ জন শিক্ষার্থীকে ট্যালেন্টপুল ও সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি সনদ, ক্রেস্ট ও নগদ অর্থ দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে ৩৭৬ জন অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীকে অংশগ্রহণের সনদ দেওয়া হয়। এছাড়াও পাঁচ লাখ টাকা মেধা বৃত্তি দেওয়া হয় এবং অ্যাসেব মোহাম্মদপুর ইউনিটের সদস্যদের প্রচার পত্রের ‘ছায়া শিক্ষা পরিবার’ মোড়ক উন্মোচন করা হয়।  
অনুষ্ঠানে অ্যাসেব মোহাম্মদপুর শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক কাওসার হামিদ সুমনের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন  মোহাম্মদপুর ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক রাসেল রায়হান৷ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অ্যা সেব বৃত্তির প্রবর্তক মোহাম্মদপুর ইউনিটের সভাপতি মো. কামরুল হাসান।
অনুষ্ঠানে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের হাতে সনদ তুলে দেন অতিথিরা।  অতিথিদের মূল্যবান বক্তব্য ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি  হয়।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের কোচিং পরিচালকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব শ্যা ডো এডুকেশন বাংলাদেশ (অ্যাসেব)। সারা দেশের প্রায় দেড় হাজার প্রতিষ্ঠান এই সংগঠনের সদস্য। প্রায় ২০ লাখ শিক্ষার্থী এই ছায়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহায়ক শিক্ষা নিয়ে থাকে। লক্ষাধিক গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে আর্থিক সহায়তা করে থাকে এই প্রতিষ্ঠানগুলো।

এমএসি/আরএইচ